Responsive Ad Slot

Latest

latest

গ্রহাণুর উপর হামলা চালাতে চায় নাসা পাঠাতে চলেছে মহাকাশযান মিশন ডার্ট

এস্টোরয়েড এর উপর এবার সরাসরি হামলা করতে চলেছে নাসা । নাসা সেই আক্রমণ চালাবে মহাকাশে ভিন মূলুক থেকে পৃথিবীর দিকে অসম্ভব গতিতে ছুটে আসা গ্রহাণুর মানে

শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১

/ by Nuralam

 এস্টোরয়েড  এর উপর এবার সরাসরি হামলা করতে চলেছে নাসা । নাসা সেই আক্রমণ চালাবে মহাকাশে ভিন মূলুক থেকে পৃথিবীর দিকে অসম্ভব গতিতে ছুটে আসা গ্রহাণুর মানে এস্টোরয়েড পথ থেকে সরিয়ে দিতে । না হলে যে পরিত্রাণ নেই সভ্যতার এই মিশনটি কবে হবে জানিয়ে দেই । হতে চলেছে আগামী ২৪ শে নভেম্বর আর মাত্র ১০ দিনের মাথায় । গ্রহাণুকে সরাসরি আক্রমণের লক্ষ্য নিয়ে এই ২৪ শে নভেম্বর মহাকাশে পাড়ি দেবে নাসার মহাকাশযান ।


গ্রহাণুর উপর হামলা চালাতে চায় নাসা পাঠাতে চলেছে মহাকাশযান মিশন ডার্ট
গ্রহাণুর উপর হামলা


ইলন মাস্ক এর সংস্থা স্পেসএক্স এর বানানো অন্নত শক্তিশালি ফ্যলকন ৯ রকেট চেপে । ক্যালিফোর্নিয়ার ভেন্ডেবার এয়ারপোর্ট স্টেশন  থেকেই হবে  আর মিশনটির নাম হচ্ছে dart । ডবল এস্টোরয়েড  রিডাইরেকশন টেষ্ট মিশন । নাসা জানিয়েছে  যে , এই যে dart মিশন অভিযানের মূলত দুটি লক্ষ্য রয়েছে

১। এক একটি মহাকাশযান ভয়ঙ্কর গতিবেগে এগিয়ে আছড়ে পড়বে একটি গ্রহাণু উপর । যে গতিতে গ্রহাণু গায়ে গিয়ে আছড়ে পড়বে নাসার মহাকাশযান তাহলে সেকেন্ডে সাড়ে ছয় কিলোমিটার একটু বেশিই । ওই গতিবেগে মহাকাশযানের আছড়ে পড়ার ফলে পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসা গ্রহাণুর গতিবেগ ১ শতাংশ কমে যাবে ।ফলে তার অভিমুখ কিছুটা বদলে যাবে তাতে বলা যেতে পারে পৃথিবীর বিপদ কমে যাবে । 

২। আর দুই যে প্রযুক্তির মাধ্যমে নাসা  ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি ও চীন জাপানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা গুলি । মহাকাশ থেকে পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসা মহাজাগতিক বস্তু গুলির বিপদ এড়াতে চাইছে । সেই প্রযুক্তি বাস্তবে কতটা কার্যকর হয় তা পরীক্ষা করে দেখান । সেই আসন্ন বিপদ গুলির মধ্যে রয়েছে বেনু মত সুবিশাল একটি গ্রহাণু । আগামী শতাব্দীতে পৃথিবীর খুব কাছাকাছি এসে পড়ার কথা । আপাতত পৃথিবীর দিকে ধাবমান যে গ্রহাণু টিকে সজোরে ধাক্কা দিয়ে তার পথ থেকে সরিয়ে দিতে চাইছেন নাসা । তার নাম হচ্ছে ড্রিমস । প্রায় দু দশক আগে যার আবিষ্কার হয়েছিল  যার ব্যস ৭৮০ মিটার । 

২০০৩ সালের এর খুব ক্ষুদ্র মানে আমাদের যাদের তুলনায় একটি চাঁদ মূল্যের লেটের হদিস মেলে । চেক প্রজাতন্ত্র দেশ ওজেজ অবজাজরি টেলিস্কোপে সেই চাঁদ । তখনই গ্রহটির নাম রাখা হয় ড্রিমস  গ্রীক অথ মানে হল জমজ । আলাদাভাবে চাদরটির নাম দেওয়া হয় ডাইমোস যার ব্যস প্রায় ৫২৫ ফুট । 

নাসার dart মিশণের অন্যতম রান্ডয়া বলেছেন মহাকাশযান ড্রিমসের ওই চাঁদের গায়ে সজোরে আছড়ে পড়বে এই dart মিশনের মহাকাশযানটি । তাতে চাঁদটির কক্ষপথের প্রদক্ষিণের সময় বদলে যাবে কম করে সাত মিনিট । তা বদলে দেবে ইনিংসের কক্ষপথের প্রদক্ষিণের সময় অভিমুখ । নাসার আরো জানিয়েছে আগামী সেপ্টেম্বরে ২০২২ সেপ্টেম্বরে এই মহাকাশযান গিয়ে আছড়ে পড়বে । তখন ড্রিমস সে চাদ  থাকবে পৃথিবী থেকে  ১ কোটি ১০ লক্ষ কিলোমিটারের মধ্যে । তার মানে এই যে ২৪ শে নভেম্বর পাঠানো হবে মহাকাশযানটি সেটি গিয়ে পৌঁছবে আগামী বছরের সেপ্টেম্বরে । ইনফরমেশনটা কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না । সঙ্গে থাকবেন  লাইক শেয়ার অবশ্যই করবেন আর কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত জানাবেন ।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Don't Miss
© all rights reserved
made with by templateszoo